শুধু টমেটো নয়, আরো অনেক জিনিসের উপর নির্ভরশীল পাকিস্তান। রপ্তানি বন্ধ করে দিলে আর্থিক ক্ষতি হবে ভারতের।

0
4709

সম্প্রতি ভারতের উপর করা আক্রমন হয়। আর সেই আক্রমন করে পাকিস্তান। সেই হামলায় মৃত্যু হয় কম করে ৪০ জন সেনার। তারা দেশের জন্য শহিদ হয়। তাই ভারতবাসি ও ভারতের সকল নেতা মন্ত্রীরা  ক্ষিপ্ত হয়ে আছেন। তাই তাদের কাছে ভারত থেকে যা যা জিনিস রপ্তানি করা হত সব কিছু বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এরকম ভয়ানক যুদ্ধ বিগত তিন বছরে হল। বিনা দোষে এত সেনার প্রান নেওয়ায় ভারতের ক্ষোভ তৈরি হয়েছে পাকিস্তানের উপর। তাই আমাদের দেশের প্রধান মন্ত্রী পাকিস্তানের সঙ্গে সমস্ত বানিজ্যিক চুক্তি বন্ধ দেন। সেখানে আর কোন জিনিস যাবেনা আমাদের দেশ থেকে। আমরা সকলেই জানি যে ভারত থেকে পাকিস্তানে ট্মেটো রপ্তানি হওয়া বন্ধ হয়েছে। শুধু তাই নয় আরো অনেক জিনিস সেখানে জাওয়া বন্ধ হয়েছে। যেমন-

তুলোঃ পাকিস্তান তুলোর জন্য নির্ভরশীল ভারতের উপর। এখানে একমাত্র ভালো তুলো উতপন্ন হয়। ২৬৮৪ টাকার তুলো রপ্তানি করা হয়েছে পাকিস্তানে। কিন্তু এখন থেকে এই ঘটনার পর কোন তুলো রপ্তানি করা হবেনা সেখানে। এখন এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর তাদের পক্ষে তুলো কেনা খুব মুশকিল হিয়ে উঠেছে।

জৈব রাসায়নিকঃ আজকের দিনে জৈবিক রাসায়নিকের ব্যবহার সব জায়গায়। কিন্তু পাকিস্তানের কোন মানুষ এই জিনিস তোইরি করতে অক্ষম। তাই তারা এই জিনিস কেনে ভারত থেকে। যুদ্ধের আগে ভারত থেকে পাকিস্তানে কোটি কোটি টাকার রাসায়নিক রপ্তানি হয়েছে। এখন রপ্তানি বন্ধ করায় বেশ অসুবিধায় পড়েছে পাকিস্তান।

প্লাস্টিক জিনিসঃ ভারতে অনেক জিনিস তৈরি করা হয় প্লাস্টিকের। আর সেই জিনিস খুব প্রয়োজন হয়। সে সব জিনিস দরকার পাকিস্তানিদের। তাই তারা প্লাস্টিকের জিনিস কেনে ভারত থেকে। এখন এই জিনিস রপ্তানিও বন্ধ হয়েছে। যদি তারা প্লাস্টিক কিনতে চায় তাহলে তাদের অধিক পরিমানে ট্যাক্স দিতে হবে।

চামড়াঃ ২০১৮ সালে ভারত থেকে পাকিস্তানে ৫১০ কোটি টাকার চামড়া রপ্তানি করা হয়েছিল। তাদের দেশে তৈরি হয়না চামড়ার কোন জিনিস। সেখানে এই কাজের কোন ব্যবস্থা নেই। তাই এখন থেকে এগুলো রপ্তানি করা বন্ধ করলে তারা খুব অসুবিধায় পরবে।

নিউক্লিয়ার রিয়াক্টর বায়লর ও মেশিনঃ ভারত ২০১৮ সালে পাকিস্তানকে প্রায় ৪১৩ কোটি টাকার নিউক্লিয়ার রিয়াক্টর বায়লর ও মেশিন বিক্রি করেন। তারা এখনও ভারত থেকে অনেক পিছিয়ে। ভারত এই জিনিস তাকে না দিলে তারা অসুবিধায় পরবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here