শুকনো লঙ্কার এই টোটকাতেই দূর হবে জটিল সমস্যা, আজই ট্রাই করুন…

0
494

কিছু কিছু জিনিস আছে যা খাওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকারক বলেই আমরা জানি। তার মধ্যে লঙ্কা বা শুকনো লঙ্কার ঝাল খাওয়া অবশ্যই ক্ষতিকারক। অনেকেই বলে থাকেন শুকনো লঙ্কার ঝাল খেলে পেটের সমস্যা দেখা দেয়। এমনকি ডাক্তাররাও বলেন শুকনো লঙ্কার ঝাল থেকে হতে পারে গ্যস্ট্রিক আলসারের মত রোগ। শুকনো লঙ্কার যেমন খারাপ দিক আছে, আবার শুকনো লঙ্কার অনেক গুনও আছে।

শুকনো লঙ্কা এতটাই শক্তিশালী যে এটি যেকোনো ধরনের কষ্ট কাটিয়ে উঠতে বেশ কার্যকরী। নজর কাটানো থেকে ব্যবসায় উন্নতি সবেতেই একটি পজিটিভ ভুমিকা ধারন করে শুকনো লঙ্কা। অনেক জটিল সমস্যা সমাধানে কাজে আসে শুকনো লঙ্কা।

অসুস্থ ব্যাক্তিকে সুস্থ করতে ঃ- বাস্তুমতে যদি কোনো ব্যাক্তি অনেকদিন ধরে অসুস্থ থাকেন বা গুরুতর রোগে ভুগতে থাকেন, তাহলে সেই ব্যাক্তির বালিশের তলায় পাচটা শুকনো লঙ্কা রেখে দিন। একটা পরিষ্কার সাদা কাপড়ে মুড়ে ভালো করে বালিশের তলায় রাখবেন।

নজর দোষ কাটাতে ঃ- একটি প্রচলিত ধারনা আছে যে কারুর নজর লাগলে শুকনো লঙ্কা ব্যবহার করা হয়। নজর লাগলে সাতটি শুকনো লঙ্কা ওই ব্যাক্তির পাশ দিয়ে ঘুরিয়ে সেটাকে আগুনে পোড়ানো হয়। যদি গন্ধ বেরোয় তাহলে নজর লাগেনি, আর লঙ্কার ঝাঁঝ বেরোলে নজর লেগেছে। পুরোটাই একটা প্রচলিত ধারণা।

সফলতা পেতে ঃ- যদি অনেকদিন ধরে কোনো সফলতা না আসে তাহলে শুকনো লঙ্কার ২১টা বীজ নিয়ে একটা জগে রেখে তার মধ্যে জল ভরে সেই জগ ওই ব্যাক্তির মাথার চারপাশে ঘুরিয়ে সেই জল বাড়ির পাশে ফেলে দিলে সফলতা আসে। বাস্তুমতে এমনটাই মেনে আসা হয়।

ধনসম্পত্তি বৃদ্ধিতে ঃ- ধনসম্পত্তি বৃদ্ধি করতে কে না চায়। বাস্তুমতে সাতটি লঙ্কা রুমালের মধ্যে রেখে টাকা রাখার স্থানে রাখুন, এতে টাকার অভাব দূর হবে। কোনো গরিব ব্যাক্তিকে আটা ও লাল লঙ্কা দান করলে উপকৃত হওয়া যায়।

নেতিবাচক শক্তি দূর করতে ঃ- বাড়ির দরজায় লেবু ও শুকনো লঙ্কা বেধে ঝুলিয়ে দিন। এতে বাড়ির মধ্যে কোনো নেতিবাচক শক্তি প্রবেশ করতে পারবে না। কারুর নজরও পরবে না আপনার বাড়ির ওপর। কারুর গাড়ি থাকলে একই পদ্ধতি অবলম্বন করা যেতে পারে নেতিবাচক শক্তি দূর করার জন্য। দোকানেও একই ভাবে লেবু লঙ্কা ঝুলিয়ে রাখলে ব্যবসায় নজর লাগবে না।

শত্রু দমন করতে ঃ- এটিও একটি প্রচলিত টোটকা। শত্রু দমন করতেও ভীষণ উপকারী শুকনো লঙ্কা। রাতের বেলায় পাচটি শুকনো লঙ্কা নিয়ে একটি গর্তে রেখে শত্রুর নাম মনে মনে নিয়ে গর্তটা বুজিয়ে দিন। এতে শত্রু দমন হয়।