সপ্তাহের কোন দিন কোন কাজ করলে ভাগ্য খুলে যায়, আসে অনেক টাকা…

0
11400

জীবনে অর্থ সুখ সম্বৃদ্ধি পেতে আমরা কত কিছুই না করে থাকি। তবে মনে রাখতে হবে অর্থ ভাগ্য সকলের সমান হয় না। কিন্তু প্রচুর অর্থ উপার্জনের ইচ্ছা প্রায় সকলের মধ্যেই থাকে। আর্থিক স্বচ্ছলতা জীবনে যেমন আশীর্বাদ, ঠিক তেমনই আর্থিক অভাব হচ্ছে অভিশাপ। তাই পর্যাপ্ত পরিমাণে উপার্জন ও সঞ্চয় করা অতি জরুরী।

আবার অনেক সময় দেখা যায় উপার্জন হচ্ছে, কিন্তু সঞ্চয় একেবারেই নেই। অর্থ সঞ্চয় ঠিক মত করার জন্য সপ্তাহে সাত দিন কিছু কাজ করতে হবে। এই কাজ গুলি করলে আর্থিক উন্নতি হবে বলে জানাচ্ছে জ্যোতিষ শাস্ত্র।

রবিবার – রবিবার মানেই সূর্যদেবের দিন। এই দিন সূর্যদেবের আরাধনা করলে খুব ভালো ফল পাওয়া যায়। রবিবার সূর্যদেবের উদ্দেশ্যে চাল ও জল অর্পণ করলে আর্থিক অবস্থার উন্নতি হয়।

সোমবার – এই দিনটিকে জ্যোতিষ শাস্ত্রে চন্দ্রের দিন হিসাবে মনে করা হয়। এই দিনের খাদ্য তালিকায় ক্ষীর অবশ্যই রাখুন। সোমবার সকালে কপালে চন্দনের তিলক ও সাদা রঙের পোশাক পড়ুন। এতে আর্থিক অবস্থার অবশ্যই উন্নতি হবে।

মঙ্গলবার – এই দিন বিশেষ করে মঙ্গল গ্রহের পুজো করতে হবে বা হনুমানজির পুজো করতে পারেন। যারা মাঙ্গলিক তারা যেকোনো লাল জিনিস দান করুন। এছাড়াও এই দিন মুসুর ডাল দান করা খুব শুভ বলে মনে করা হয়।

বুধবার – এই দিনটি বুধ গ্রহের। এই দিন সবুজ গোটা মুগ ডাল দান করুন এবং আগের দিন মুগ ডাল ভিজিয়ে রেখে গরুকে খাওয়ান। এতে আর্থিক অবস্থার উন্নতি হয়।

বৃহস্পতিবার – বৃহস্পতিবার অবশ্যই দেবী লক্ষ্মীর পুজো করুন এবং কোন মন্দিরে বা পুরহিতকে হলুদ বস্ত্র দান করুন। নিজেও এই দিন যতটা সম্ভব হলুদ বস্ত্র পরার চেষ্টা করুন। এতে আর্থিক অবস্থার উন্নতি হয়।

শুক্রবার – শুক্রবার শুক্র গ্রহের আরাধনা করতে পারেন। এছাড়াও দই বা সাদা রঙের পোশাক দান করুন এই দিন। এতে অঢেল ধন সম্পত্তি লাভ হয়।

শনিবার – এই দিন শনিদেবের পুজো করুন বা হনুমানজির পুজোও করতে পারেন। শনি মন্দিরে গিয়ে তিলের তেল দান করুন। হনুমানজির মন্দিরে গিয়ে নারকেল দান করুন এবং হনুমান চালিশা পাঠ করুন। এতে আর্থিক অবস্থার উন্নতি হয়।