বাবা-ছেলের সম্পর্ক নিয়ে অনবদ্য কাহিনী ‘ফিরে দেখা’…

0
1749

একটা সম্পর্ক পূর্ণতা পায় কাছাকাছি থাকায়। কিন্তু অন্তর্বতী ফাটল যদি আলাদা করে দেয় সম্পর্ককে, তখন কি সেই ফাটল ডিঙিয়ে ফিরে আসতে পারে সম্পর্কেরা একে অপরের কাছে আবার? যাকে নিয়ে গড়ে ওঠে সন্তানের ছেলেবেলা সেই পিতার সঙ্গেই যদি তৈরি হয় দূরত্ব, সন্তান কি পারে নিজের ego ভুলে সম্পর্ককে ঠিক করে নিতে?

পিতা পুত্রের সম্পর্কের এই টানাপোড়েনই ধরা পড়েছে রূপকথা এন্টারটেইনমেন্ট এর ‘ফিরে দেখা’ নামক সিনেমায়।১৮ মিনিটের এই সিনেমাটি সম্প্রতি প্রদর্শিত হয়েছে ICCR এ। সামনে এসেছে তাদের ছবির পোস্টারও। টিমকে উৎসাহ দিতে সেখানে উপস্থিত ছিলেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। বাংলা সিনেমা নিয়ে যেকোন ভালো কাজের পাশে সবসময় থেকেছেন তিনি শত ব্যস্ততার মাঝেও।

সম্পূর্ন নতুন অভিনেতাদের নিয়ে করা কাজও যে যেতে পারে অত্যন্ত উচ্চতায় সেকথা সবসময়েই স্বীকার করেন তিনি। তাই নতুনদের পাশে থাকেন উৎসাহ দিতে। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন পশ্চিমবঙ্গের বিল্ডিং ও লেবার ডির্পাটমেন্টের চেয়ারম্যান জয়দীপ মুখার্জী,সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী, ইতিহাসবিদ তথা লেখক পূরবী রায় এবং প্রাক্তন Lund বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিরেক্টর।

সিনেমার গল্প ও প্রযোজনা অন্বেষ মুখার্জির। বর্তমানে তিনি সুইডেনে প্রবাসী। গল্পটিকে চিত্রনাট্যের আকার দিয়েছেন সৈকত দাস। পরিচালনা ও সংগীত পরিচালনার দায়িত্বও সামলেছেন তিনিই।

বিভিন্ন চরিত্রে ছিলেন পুর্ণেন্দু নায়ক, সুরজিৎ স্বর্ণকার, সঙ্গীতা ব্যানার্জী, সুশান্ত রায়। সব বিশিষ্ট অতিথিরাই সাধুবাদ জানিয়েছেন সিনেমাটিকে। বাংলা সিনেমা নিয়ে এরকম কাজ আরো অনেক বেশি হলে দর্শকেরা আরো একটু ভাববে বাংলা সিনেমা নিয়েও এমনই মত সকলের।