সকালে ঘুম থেকে উঠে মাটিতে ফেলুন এই পা, বদলে যাবে আপনার জীবন…

0
6959

যখন আমরা প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠি তখন আমরা নতুন স্বপ্ন, নতুন আশা ও উদ্দীপনা নিয়ে উঠি। আমরা প্রত্যেকেই চাই আমাদের স্বপ্ন গুলো যেন বাস্তবায়িত হয়। বলা হয়ে থাকে যদি শুরু ভালো হয়ে থাকে তো শেষও ভালো হয়। আর শুরু এবং শেষ দুটোই যদি ভালো হয় তাহলে সব কিছুই ভালো হয়।

তাই সকালের শুরুটা ভালোভাবে করা উচিৎ, যাতে আমরা প্রতিটি কাজে সফলতা লাভ করতে পারি। হিন্দু শাস্ত্র অনুসারে সকালে ঘুম থেকে উঠে কিছু কাজ অবশ্যই করা উচিৎ। তাই আপনি যদি ভবিষ্যৎ পালটাতে চান আর নিজেকে বদলাতে চান তাহলে এই প্রতিবেদনটি আপনার জন্যই।

শাস্ত্রে হাত ও পা’কে খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলা হয়েছে, কারণ এই হাত ও পায়ের সাধারন কিছু কাজ আপনার ভাগ্যকে বলদে দিতে পারে। তাই সকালে ঘুম থেকে উঠেই যে কাজটি করতে পারেন সেটা হচ্ছে নিজের দুই হাতের তালুর দিকে তাকানো।

বলা হয়ে থাকে মানুষের হাতের তালুর উপরে দেবী লক্ষ্মী, হাতের তালুর মধ্যে সরস্বতী এবং হাতের তালুর নিচে গবিন্দ অবস্থান করেন। তাই সকালে ঘুম থেকে উঠেই যদি দুই হাতের তালুর দিকে তাকানো যায় তাহলে দেবী লক্ষ্মী সরস্বতীর পাশাপাশি সকল দেবতারা সন্তস্ট হন।

ফলে দেবতাদের আশীর্বাদে সারা দিনটি ভালোভাবে কাটে এবং সকল কাজে সফলতার সম্ভবনা বৃদ্ধি পায়। ঠিক তেমনই মাটিতে পা ফেলার সময় কিছু নিয়ম মানতে হবে। যদি দিনটি শনিবার, রবিবার, মঙ্গলবার ও বৃহস্পতিবার হয় তাহলে ঘুম থেকে উঠে মাটিতে প্রথমে ডান পা আগে ফেলুন।

দিনটি যদি সোমবার, বুধবার ও শুক্রবার হয় তাহলে ঘুম থেকে উঠে বাম পা মাটিতে ফেলুন। এতে ধরতি মাতার আশীর্বাদে আপনার দিনটি খুব ভালোভাবে কাটবে। আপনার জীবনে আসবে উন্নতি। এরপর ঘর থেকে বেড়িয়ে পূর্বদিকে ভগবান সূর্য দেবকে প্রনাম করুন।

হিন্দু ধর্ম মতে ভগবান সূর্য হলেন একমাত্র দেবতা যাকে প্রত্যক্ষদেব বলা হয়। কারণ তাকেই একমাত্র সামনা সামনি দেখা যায়। তাই প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠে সূর্যদেবকে প্রনাম করলে তিনি প্রসন্ন হন। আর তিনি প্রসন্ন হলে শারীরিক ও মানসিক কষ্টের হাত থেকে রেহাই মেলে।