এই ১০টি লক্ষণ দেখলে সতর্ক হয়ে যান, আপনার দেহে বাসা বাঁধতে পারে ক্যান্সার…

0
3079

ক্যান্সার এমন একটি রোগ যা প্রতিকার করা খুব দুষ্কর। প্রথম অবস্থায় ধরা না পড়লে এই রোগ কেড়ে নেয় মানুষের প্রাণ। এই রোগের এখনও কোন ওষুধ আবিষ্কার হয়নি, তাও প্রথম অবস্থায় বোঝা গেলে অস্ত্রপচারের মাধ্যমে এই রোগ সারিয়ে তোলা যায়। এই রোগের কথা হঠাত জানতে পারায় চিন্তায় মানুষের অবস্থা আরও খারাপ হয়ে ওঠে।

একটু সাবধান হলেই, একটু সচেতন হলেই প্রথম অবস্থাতেই বোঝা যায় ক্যান্সারের লক্ষণ। এই রোগের অনেক উপসর্গ আছে। শুরুর দিকেই রোগ বোঝা গেলে চিকিৎসা করে এই তা সারিয়ে তোলা সম্ভব। আসুন জেনে নিন সেই লক্ষন গুলি সম্বন্ধে।

১। কাশি এবং ব্রঙ্কাইটিস ঃ- এই দুটি রোগ থেকে হতে পারে ফুসফুসের ক্যানসার। যদি কখনও কাশির সময় বুকে বা পিঠে ব্যাথা করে তাহলে তৎক্ষণাৎ ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ করে নেওয়া ভালো। কারণ এই কাশি থেকে হতে পারে অন্য কোন কঠিন রোগ। তাই সব সময় সতর্কতা অবলম্বন করাই ভালো।

২। শ্বাসকষ্ট ঃ- ফুস্ফুসের ক্যান্সারের অন্যতম একটি লক্ষণ হল শ্বাসকষ্ট। তবে শ্বাসকষ্ট আর হাঁপানি রোগের মধ্যে পার্থক্য আছে। যাদের ছোট বেলা থেকে হাঁপানি আছে তাদের ব্যাপার আলাদা, কিন্তু যদি হঠাত করে হাঁপানি হয় আর তা অনেক দিন থাকে তাহলে বুঝতে হবে শরীরে কোন কঠিন রোগ বাসা বেঁধেছে।

৩। লিউকোমিয়া ঃ- লিউকোমিয়া হলে সাবধান। এর ফলে রক্তে শ্বেত কণিকার পরিমাণ অনেক কমে যায়। তার ফলে শরীর অসুস্থ হয়ে পরে, তখন শরীর আর কোন কঠিন রোগের সঙ্গে লড়াই করতে পারেনা। ৪। খাবার খাওয়া ঃ- গ্রাসনালী দিয়ে যদি খাবার গিলতে অসুবিধা হয় তাহলে বুঝে নিতে হবে সেটা ক্যান্সারের প্রথম ধাপ।

৫। পেটে ব্যাথা ঃ- যদি অনেক দিন যাবৎ পেটে ব্যাথা হয় তাহলে সেটা হতে পারে সিস্ট বা টিউমার। আর তা থেকেই হয় ক্যানসার। ৬। রক্তপাত ঃ- রেক্টাম দিয়ে যদি রক্তপাত হতে দেখেন তাহলে তা কোলন ক্যান্সারের লক্ষণ।

৭। ওজন কমা ঃ- হঠাত করে যদি অস্বাভাবিক ভাবে শরীরের ওজন কমে যেতে শুরু করে তাহলে তা ক্যন্সারের লক্ষণ। ৮। কালসিটে ঃ- কোন আঘাত ছাড়াই শরীরে যদি কালসিটে দাগ বা লাল দাগ পড়ে যায় তাহলে তা মোটেই ভালো লক্ষণ নয়।

৯। নখের রং ঃ- যদি নখের রং বদলে বাদামি হয়ে যায় বা বিবর্ন হয়ে যায় তাহলে তা ক্যান্সারের লক্ষণ। ১০। গ্ল্যান্ড ফুলে যাওয়া ঃ- শরীরের কোথাও যদি আচমকা গ্ল্যান্ড ফুলে যায় তাহলে তা ক্যান্সারের লক্ষণ হতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here