এই ছয়টি জায়গায় ভুলেও শারীরিক সম্পর্ক করবেন না…

0
62371

নারী পুরুষকে যা এক করে তা হল শারীরিক মিলন। আর এই শারীরিক মিলনেরও কিছু নিয়ম আছে। যেখানে সেখানে শারীরিক সম্পর্ক করা কখনোই উচিত নয়। হিন্দু শাস্ত্র অনুযায়ী এমন ছয়টি জায়গা রয়েছে যেখানে নারী পুরুষের মিলিত হওয়া নিষিদ্ধ। এইসব জায়গায় খারাপ কাজ করলে মহাপাপের ভাগিদার হতে হয়। তাহলে জেনে নেওয়া যাক সেগুলি সম্বন্ধে।

আগুন ঃ- অগ্নি বা আগুণকে হিন্দু ধর্মে দেবতা হিসাবে মানা হয়। তাই আগুনের সামনে শারীরিক সম্পর্ক করতে বারুন করা হয়েছে। এরকম করলে আপনি পড়তে পারেন অগ্নি দেবের রোষানলে।

নদী ঃ- কোন নদীর আশেপাশে স্বামী স্ত্রীর মিলিত হওয়া উচিৎ নয়। এতে সংসারে নানা রকম অশান্তির সৃষ্টি হতে পারে। নদীকে আমরা মা রূপে পুজো করি। আর তার সামনে কোন খারাপ কাজ করা মানে নিজের বিপদ ডেকে আনা।

অসুস্থ ব্যক্তি ঃ- বাড়িতে যদি কোন ব্যক্তি অসুস্থ অবস্থায় থাকে তাহলে সেখানে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হওয়া অনুচিত বলে মনে করা হয়। এর ফলে আপনাদের জীবনে বিপদের পরিমান অনেক বেড়ে যায়। আপনার জীবন হয়ে উঠতে পারে যন্ত্রনা ময়।

শ্মশান ঃ- যে জায়গায় শ্মশান বা কাছাকছি কারোর সমাধি আছে, সেই জায়গায় ভুলেও শারীরিক সম্পর্ক করবেন না। এতে পূর্বপুরুষের আত্মারা অসন্তস্ট হন। ফলে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে অমিল ও দূরত্বের সৃষ্টি হয়। এছাড়াও সেখানকার ভুত প্রেতের দ্বারা আপনি ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারেন।

অন্যের ঘর ঃ- অন্যের ঘরে কখনোই শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হওয়া উচিৎ নয়। সেটা কোন আত্মিয়ের ঘর হোক বা কোন বন্ধুর, এমনটা করলে সম্পর্কে নানান টানা পোরেন আসতে পারে। আপনি অপমানিতও হতে পারেন।

মন্দির ঃ- শাস্ত্র অনুসারে কোন মন্দির বা তার ধারে শারীরিক সম্পর্ক করা উচিৎ নয়। এমনটা করলে মহাপাপের ভাগিদার হতে হয়। এর ফলে আপনাকে সারা জীবন দুঃখ কষ্টের মধ্যে দিয়ে অতিবাহিত করতে হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here