আমাদের ব্যস্ত রুটিনের বাইরে শহরের ‘বেহায়া-বেপরোয়া হাওয়াদের’ নিয়ে নতুন গান জয়দীপ-এর…

0
690

মিউজিয়ানা কালেক্টিভ থেকে প্রকাশিত জয়দীপ চক্রবর্তীর সুরেলা পুজোর উপহারে হাওয়া শুনেছেন ১ লক্ষেরও বেশি মানুষ। এত কম সময়ে ইউটিউবে এত ভিউ আর কোনো গানই পায় নি এবারের পুজোয়।

আমাদের ব্যস্ত রুটিন আর কাজের ভিড়ে একটা গোটা শহর পড়ে থাকে। আমরা সেই শহরটাকে ভুলে যাই। এই ট্রামলাইন, ভিক্টরিয়া আর ঘোড়ার গাড়ি চলা শহরের সাথে তাল মিলিয়ে যদি দেখা যায় একটা দুপুর বা বিকেল তখন বোঝা যায় শহরের মন। সেই শহরের মন বোঝার কাজটিই করেছে মিউজিয়ানা কালেক্টিভ থেকে পুজোয় বের হওয়া জয়দীপ চক্রবর্তীর গান ‘এ হাওয়া’।

রাজীব দত্তের কথায় এবং দেবজিৎ রায়ের সুরে গানটি ধরে রেখেছে শহরের ‘বেহায়া- বেপরোয়া হাওয়াদের’। গানের প্রতি ভালোবাসাকে জয়দীপ ধরে রেখেছেন বহুদিন। অন্যান্য বাঙালির মতোই রবীন্দ্রসংগীতের প্রতি তার আলাদা এক মুগ্ধতা আছে। তার মতে বাংলা গান জড়িয়ে আছে আমাদের জীবনের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে। সেই জড়িয়ে থাকা থেকেই বাঙালির ভালোবাসা বাংলা গানের প্রতি। যা কখনোই শেষ হওয়ার নয়।

দেবজিতদার সুরে একটা গান করার আকাঙ্ক্ষা থেকেই ‘এ হাওয়ার’ সূচনা। তিনি ,রাজীব দত্ত এবং দেবজিৎ রায় একদিন একসঙ্গে বসে গানের প্রাথমিক আলোচনা করছিলেন। সেই টেবিলেই উঠে আসে একটি সুর। সেই সুরের উপরই কথা বসান রাজীব। গোটা গানটাই আসলে একটা টিম ওয়ার্ক এর মত। তাই কোন অংশে কোন অসুবিধা বুঝতে পারেননি কেউই।

মজা করে তারা গানটি গেয়েছেন। আনন্দ করেছেন। জয়দীপের দাদার ছেলে, ভাইপো জয়দীপের নিজের মুগ্ধ শ্রোতা। কোন গান ভালো আর কোন গান খারাপ সেটা জানতে চান জয়দীপ তার থেকেই। এটা জয়দীপের অন্যতম ভালোলাগার জায়গা। জয়দীপের গান ইতিমধ্যেই পৌঁছে গেছে লক্ষাধিক মানুষের কাছে। আরো মানুষ দেখছেন ইতিমধ্যেই।

আসলে সব মানুষের মধ্যেই ব্যস্ততাকে পেরিয়ে নিজের শহরকে দেখার একটা সূক্ষ্ম ইচ্ছে থেকেই যায়। তাই মানুষের ভালোবাসা পেয়ে গানটি এগিয়ে চলেছে আরো অনেকদূর। বেহায়া বেপরোয়া হাওয়াদের কি কোন রাস্তা থাকে??? Article সৌজন্যে – Bengal Web Solution (9903360341)