সমুদ্র গর্ভে হারিয়ে যাবে গোটা বিশ্ব ঃ তথ্য দিল নাসা…

0
138505

সত্যিই হারিয়ে যাবে বিশ্ব এমনই আশঙ্কা করছে বিজ্ঞানীরা। আগামী ১০০ বছরের মধ্যে জলস্তর ১ মিটার বাড়বে। বিশ্ব উষ্ণায়নের ফলে যে হারে সমুদ্রের জলস্তর বাড়ার কথা তার থেকে আনেক দ্রুত জলস্তর বাড়ছে, যার ফলস্বরুপ প্রশান্ত মহাসাগর, ভারত মহাসাগর, এছাড়া অনেক দ্বীপ ও অনেক সমুদ্র উপকুলবর্তী শহর আঁচিরেই হারিয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করছে নাসার বিজ্ঞানীরা।

এমনকি ফ্লোরিডার মতো জনপদও হারিয়ে যাবার আশঙ্কায় রয়েছে, যার ফল ভোগ করতে হবে ১৫ কোটি বিশ্ববাসীকে। সমুদ্র জলস্তর নিয়ে গবেষণা করে নাসার প্রধান স্টিভ নেরেম জানিয়েছেন, নিশ্চিত ১০০ বছরের মধ্যে জলস্তর ১ মিটার বাড়বে।

আধুনিক যন্ত্র দ্বারা জলস্তর পরীক্ষা করে নাসার বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন জল যেমন বেড়েছে তেমনই জলে ভাসমান পাহাড়ের উচ্চতাও বেড়েছে। এই জলস্তরকে বাঁধা দেওয়া কোনো ভাবেই সম্ভব নয়।

বিশ্ব উষ্ণায়নের যেরে জলস্তরের সাথে সাথে তাপমাত্রাও বাড়ছে। এতে অ্যানটারটিকা গ্রিনল্যান্ডের বরফের স্তর শুধু উপরের ভাগ থেকে নয় নিচের ভাগ থেকেও গলছে। ফলে বরফের পাহাড় ভেসে উঠছে, বাড়ছে উচ্চতা।

গবেষকরা বেশি চিন্তিত গ্রীনল্যান্ডের বরফের স্তর নিয়ে। কারণ তথ্য বলছে গত এক দশকে প্রতিবছর গ্রীনল্যান্ডে ৩০৩ গিগাটন বরফ গলছে। তথ্য এও বলছে আনটারটিকায় গলছে ১১০ গিগাটন।

সমুদ্র বিশেষজ্ঞ জশ উইলস বলছেন “আমরা যতটা ভেবেছিলাম গত কয়েক বছরে তার চেয়ে অনেক তাড়াতাড়ি বরফ গলছে। আমাদের ধারানা আগামী ২০ বছরে আরও দ্রুতহারে বরফ গলবে। কিন্তু কেন এত দ্রুতহারে বরফ গলছে তা নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা রয়েছে বিজ্ঞানীদের একাংশের।

তা নিয়ে এখনও কিছুটা রহস্য রয়েছে গবেষকদের মধ্যে। এই হারে জলস্তর বাড়লে একসময় আঁচিরেই হাড়িয়ে যাবে বিশ্ব, এতে চিন্তিত বিজ্ঞানীরা। বিশ্ব উষ্ণায়ন নিয়ে আর সমুদ্রের জলস্তর নিয়ে আরও গবেষণা চলবে বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।