পুরাণ মতে জীবনে শান্তি ও সফলতা পাওয়ার জন্য এই কাজ গুলি করুন, একদিন উন্নতির চরম শিখরে পৌঁছবে।

0
2114

হিন্দু ধর্মগ্রন্থে গড়ুরজি কে ভগবান বিষ্ণুর বাহন হিসাবে পুজো করা হয়। এনার পিতার নাম কাশ্যপ ঋষি এবং মাতার নাম বিনতা। আমাদের ধর্মে গড়ুরকে পাখিদের রাজা বলে মানা হয়েছে। সে সমস্ত পাখিদের থেকে দ্রুত উড়তে পারে। আমাদের শাস্ত্রে গড়ুর পুরাণ আছে। আর সেখানে কিছু উপায়ের উল্লেখ করা আছে যা মেনে চললে আপনার জীবনে সফলতা লাভ করতে পারবেন।

১। ভগবান বিষ্ণুঃ ভগবান বিষ্ণু পৃথিবীতে অনেক বার মানুষ রূপে জন্ম গ্রহন করেছেন। মানুষ তার সব অবতারকে ভগবান রূপে পুজো করে। ভগবান বিস্নুকে সকাল সন্ধ্যা পুজো করা উচিত। সর্বদা ভগবান বিষ্ণুর নাম নিলে সমস্ত দুঃখ কষ্ট দূর হয়ে যাবে। জীবনে সব ক্ষেত্রে সফল হবেন। রোজ সকালে উঠে ভগবান বিষ্ণুর নাম নিন আর তার পুজো করুন।

২। গরুঃ হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা গরুকে দেবতা রূপেই মানে। গরুকে পুজো করার অর্থ হল সমস্ত দেব দেবীকে পুজো করা। আর এই পুজো প্রচন্ড ফলদায়ক হয়। এর ফলে আপনার সমস্ত পাপ মুক্ত হয়। গড়ুর পুরাণে লেখা আছে যে ব্যাক্তি জীবনে সফল হতে চায় সে অবশ্যই গরুর সেবা করুন।

৩। একাদশীর ব্রতঃ বছরে অনেক রকম একাদশী হয়ে থাকে। আর একাদশীর ব্রত রাখা খুবই উত্তম। একাদশীতে ব্রত রাখলে জীবনের সমস্ত কঠিন সমস্যা দূর হয়ে যাবে। আর শুভ ফল প্রাপ্তি হয়।

৪। তুলসিঃ তুলসী গাছকে খুব শুভ মানা হয়ে থাকে। এই গাছ খুব পবিত্র। পুরাণ গ্রন্থে লেখা রয়েছে তুলসী গাছ বাড়ির উঠানে থাকলে সমস্ত বাড়ি পবিত্র হয়। তুলসী গাছকে প্রতিদিন পুজো করা উচিত। তুলসী পাতা দিয়ে ভগবান বিষ্ণুর পুজো করা হয়।

৫। পন্ডিতঃ পণ্ডিত এর সেবা করা বা পণ্ডিত কে খাদ্য খাওয়ানো খুব পুন্যের কাজ। বলা হয় কখনো ঘর থেকে কোন পণ্ডিত কে খালি হাতে ফেরাতে নেই। পন্ডিতের সেবা করলে তার আশির্বাদ প্রাপ্ত হয় আপনার। আর আপনার পরিবারের উপর আসা সমস্ত সমস্যা দূর হয়ে যায়।

৬। গঙ্গা নদীঃ প্রতিদিন কত লোক নিজেকে পাপ থেকে মুক্ত করার জন্য গঙ্গা নদীতে ডুব দিতে যায়। এই নদী হল পবিত্র। বলা হয় গঙ্গা নদীর পুজো করলে জীবনে সফলতা লাভ করা যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here