উঠল তাপপ্রবাহের সতর্কতা, তৈরি হচ্ছে কালবৈশাখীর অনুকূল পরিস্থিতি…

0
15654

কয়েকদিন ধরে যা পরিস্থিতি তাতে প্রায় বেশীর ভাগ বঙ্গ বাসির প্রান ওষ্ঠাগত। মে মাসের প্রথমে ফনি এসে এক দিনের স্বস্তির ঘুম দিয়ে গেলেও তার পর থেকে ঘুম উরে গেছে মানুষের, মে মাস শুরু হতে না হতেই কোলকাতার তাপমাত্রা গিয়ে ছাড়িয়েছে ৪২ ডিগ্রী, পশ্চিমবঙ্গের কোথাও কোথাও তা ৪৬ এও পৌঁছে গেছে।

গরমের এই পেল্লায় প্রখরতায় সরকার থেকে সতর্ক বার্তা জারি করা হয়েছিল যাতে খুব জরুরি কাজ না থাকলে দুপুরে ১১ টা থেকে ৩ টের মধ্যে যেন কেউ বাইরে রোদে না বেরোয়। এই ভয়াভহ গরমের হয়তো কিছুটা প্রকোপ কমবে আজ থেকেই, জানিয়ে দিলো কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দপ্তর।

আরও জানানো হয়েছে যে হয়তো আজ বিকেল থেকেই দঙ্খিন বঙ্গের কিছু কিছু স্থানে সামান্য ঝড় বৃষ্টি হলেও হতে পারে। উদ্ভট এই গরমের কারন স্বরুপ জানানো হয়েছে যে ফনির আগমনের ফলে হাওার দিক পরিবর্তন ঘটেছিল।

গত কয়েক দিন ধরে রাজ্য জুড়ে যে ভয়ানক দাবদাহ শুরু হয়েছিলো, আজ থেকে আসতে আসতে সাধারন আকার নেবে। হাওয়ার ছন্দ বদলে গিয়েছিলো ফনির জন্যে। যার ফলে দক্ষিণ পূর্ব দিকের বদলে দক্ষিণ বঙ্গে হাওয়া ঢুকছিল পশ্চিম দিক থেকে।

ফল স্বরুপ পুরো মধ্য ভারতের গরম ঢুকে পড়ছিল আমাদের রাজ্যে এবং যার ভোগান্তি ভুগছিল রাজ্য বাসি, একদিকে যেমন চড়ছিল পশ্চিমাঞ্চলের পারদ অন্য দিকে বাড়ছিলো অস্বস্তিকর পরিবেশ। যারফলে তাপমাত্রা স্বাভাবিক এর থেকে পাঁচ ডিগ্রী বেশি চড়ে যায়।

রাজ্য সরকারের তরফ থেকে সতর্ক বার্তা জারি করা হয়। তবে বিরভুম,পুরুলিয়া, বাঁকুড়ায় তাপমাত্রা খাতায় কলমে ৪০ ছাড়ালেও তা এই জায়গাগুলি তাপ প্রবাহের কবলে পরেনি। তাছাড়া বাকি সমস্ত জায়গাতেই তাপমাত্রা ছিল ৪০ এর ওপরে।

তবে রবিবার রাত্রি থেকে অবস্থার পরিবর্তন ঘটেছে। পশ্চিমী হাওয়ার পরিবর্তে আসতে আসতে ঢুকছে পূবালী হাওয়া এবং পশ্চিমাঞ্চলের জেলা গুলিতে আজ বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে। তাছাড়া আরও এও জানানো হয়েছে যে সোম থেকে বুধবারের মধ্যে কলকাতা এবং তার পারশবরতি জেলা গুলিতেও বৃষ্টিপাত হতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here