নতুন রিচার্জ প্ল্যান ঘোষণা Jio-র, ৩ মাসের রিচার্জের দাম একধাক্কায় বাড়ল ১৫৬ টাকা…

0
4246

যত দিন যাচ্ছে আমরা তত বেশি উন্নত হচ্ছি। আর এখন গনমাধ্যম যে কতটা জরুরী তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। আগে যোগাযোগ ব্যবস্থার জন্য চিঠি, তারপর টেলিগ্রাম, শেষে টেলিফোন ছিল। কিন্তু যুগের সাথে তাল মিলিয়ে আমরা উন্নতি করেছি। আমাদের হাতে এসেছে মোবাইল ফোন। এছাড়াও যোগাযোগের মাধ্যম হিসাবে ই-মেল ব্যবস্থা ছিল,

তারপর ধীরে ধীরে ফেসবুক হোয়াটসঅ্যাপ কতকিছু এসেছে। তার সাথে সাথে এসেছে ইন্টারনেট পরিষেবা। মার্কেটে বিভিন্ন মোবাইল অপারেটর ইন্টারনেটের বিভিন্ন প্যাকেজ নিয়ে এসেছে। একে অপরের সাথে পাল্লা দিয়ে চলেছে। বর্তমান সমাজে চলতে গেলে ইন্টারনেট ছাড়া চলা প্রায় অসম্ভব।

যেকোনো কাজেই এখন নেট খুবই জরুরী। ভোডাফোন এয়ারটেলের পাশাপাশি জিও বাজারে বেশ চমকপদ অফার নিয়ে হাজির হয়েছিল। জিও শুরু করেছিল ফ্রী সার্ভিস দিয়ে। একদম প্রথমে জিও সিম পাওয়া যাচ্ছিল সম্পূর্ণ বিনামুল্যে।

পরে ১৪৯ টাকার এক মাসের প্যাকেজ আর ৩৯৯ টাকার ৩ মাসের প্যাকেজ চালু করে জিও। পাশাপাশি আরেকটি যুগান্তকারী ঘোষণা করে জিও। একদম বিনামুল্যে একটি জিওর ফোন দেওয়ার কথা বলে আম্বানী সংস্থা।

রিলায়েন্স জিওর জন্য কোনো টাকা দিতে হবে না বলে জানান মুকেশ আম্বানী। শুধু ডিপোসিট করতে হবে ১৫০০ টাকা। 4G ডেটার সাথে এই জিও স্মার্টফোনের সুবিধা ব্যাপক সাড়া ফেলে দেয় মার্কেটে। জিও ফোনের জন্য দুটি প্ল্যান ধার্জ করে আম্বানী সংস্থা।

১৫৩ টাকায় এক মাসের প্ল্যান, যেখানে আনলিমিটেড কল ও এসএমএস এর সুযোগ, আর ৩০৯ টাকার একটি প্ল্যান যেটা দিয়ে জিও টিভি দেখতে পারা যাবে। জিও এতটাই সস্তায় প্ল্যান দিচ্ছিল যে বাকি অপারেটরদের টিকে থাকা দায় হয়ে পরেছিল।

এবার ভোডাফোন ও এয়ারটেলের সাথে পাল্লা দিয়ে দাম বাড়াতে চলেছে জিও। নতুন রিচার্জ প্ল্যান ঘোষণা করেছে মুকেশ আম্বানী সংস্থা। তিন মাসের যে প্ল্যানটি ছিল ৩৯৯ টাকায় সেটার জন্য এখন দিতে হবে ৫৫৫ টাকা অর্থাৎ ১৫৬ টাকা একধাক্কায় বাড়ছে।

এছাড়া ১৪৯ টাকার প্ল্যানেও পরিবর্তন আনা হয়েছে যা বেড়ে হয়েছে ১৯৯ টাকা। এছাড়াও আগে ছিল আনলিমিটেড কল যেকোনো নেটওয়ার্কে, এখন সুধু জিও টু জিও ফ্রী আর বাকি নেটওয়ার্কে কথা বলার জন্য নির্দিষ্ট মিনিট। মোট ৪০ শতাংশ মাসুল বৃদ্ধি করেছে জিও। এর সাথে সাথে জিও দ্বাবি করেছে আগের তুলনায় ৩০০ শতাংশ সুবিধা মিলবে।