পায়ে কালো কার পরার গুনাগুন যানলে আপনি অবাক হবেন, জেনে নিন এক্ষুনি…

0
33168

আসলে এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে পায়ে কালো সুতো বা কালো কার পড়লে যে কোন ধরনের ক্ষতি থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। সেটা শারীরিক হোক বা অর্থনৈতিক। বাচ্চাদের খারাপ নজরের হাত থেকে রক্ষা করে এই কালো সুতো। তার সঙ্গে শারীরিক উন্নতির সম্ভাবনা বেড়ে যায়, মেলে আরো অনেক উপকার, যা নিয়ে নীচে বিস্তারিত আলচনা করা হল।

আমরা অনেকেই জানি যে যারা হিন্দু শাস্ত্র নিয়ে আলোচনা করেন তারা বলেন যে কালো হল এমন একটি রং যা খারাপ শক্তিকে দুরে রাখে, নেগেটিভ এনার্জিকে কাছে ঘেঁসতে দেয়না। এর ফলে সুদৃঢ় হয় আমাদের জীবন। এই কালো সুতো থেকে কি কি সুফল পেতে পারি জেনে নেওয়া যাক।

কু-দৃষ্টির ক্ষয় ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা কমে যায় – কোনো শুভ অনুষ্ঠানে বাড়ির বড়রা কালো পোশাক পড়তে বারন করেন। কারন এমনটা বিশ্বাস করা হয় কালো পোশাক পড়লে বেড়ে যেতে পারে ক্ষতির আশঙ্কা। কিন্তু মজার ব্যাপার হল কালো কার ডান পায়ে পড়লে উলটো কাজ হয়।

এর ফলে কমে যায় কোন ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা। সমস্ত নেগেটিভ শক্তি দুরে থাকে। আপনার উন্নতি দেখে যদি আপনার বন্ধু বান্ধব খারাপ দৃষ্টি দেয় তাহলে এই কালো কার খারাপ নজরের হাত থেকে আপনাকে বাঁচায়।

আজকাল প্রতিযোগিতার যুগে সবাই সবার প্রতিদ্বন্দ্বী। একে অপরের ক্ষতি করার জন্য মুখিয়ে রয়েছে। আপনি যদি পায়ে কালো কার বা কালো সুতো পরেন তাহলে রক্ষা পাবেন এইসব বিপদ থেকে। যদি শনিবার অথবা মঙ্গলবার এই কালো সুতো পরেন তাহলে খুবই উপকার পাবেন।

নেগেটিভ শক্তিকে দুরে রাখে – তন্ত্র সাধনার কথা সবাই জানেন। আর এও জানেন সেই সাধনা কি কাজে লাগে। তবুও বলি, হাজার হাজার বছরের তন্ত্র সাধনাকে কাজে লাগিয়ে কারোর পিছনে খারাপ শক্তিকে ব্যবহার করে অনেকেই জীবন দুর্বিসহ করে তোলে।

আসলে অন্যের ওপর হিংসার ফলে তুক-তাকের পথ বেছে নেয় অনেকেই। আর যদি এমনটা কারুর উপর করা হয় তাহলে বিপদ আসতে সময় লাগে না। তাই এই নেগেটিভ শক্তির সাথে মোকাবিলা করার জন্য খুবই শক্তিশালী অস্ত্র হল এই কালো কার। যে যতই তুক-তাক করুক না কেন এই কালো কার তা থেকে আপনাকে রক্ষা করবে।

বাড়িতে সুখ শান্তির পরিবেশ বজায় রাখে – এমনটাও কথিত আছে যে একটি কালো কারে ৯টি গিঁট বেঁধে হনুমান মন্দিরে পুজো দিয়ে বাড়ির দরজার সামনে ঝুলিয়ে রাখলে বাড়িতে প্রবেশ করতে পারবেনা কোন খারাপ শক্তি। সব খারাপ শক্তি থাকবে বাড়ির বাইরে আর আপনার সংসার ভরে উঠবে সুখ সমৃদ্ধিতে।

কথায় আছে ‘বিশ্বাসে মেলায় বস্তু তর্কে বহুদূর’। আসলে সবটাই মনের বিশ্বাস। যদি এই কালো সুতোকে বিশ্বাস করে পড়া যায় তবে সব বাঁধা কেটে যেতে বাধ্য। মনের মধ্যে কোনো সংশয় নিয়ে এই সুতো বাঁধলে কোনদিনই উপকার পাবেন না।