অসমাপ্ত ভালবাসা নিয়ে রূপঙ্করের অপ্রেমের গান…

0
854

‘তোমার দুচোখ যতদূর / যাব আমি ততদুর প্রিয়তমা।’ প্রেম একবার আসে, না বারবার- সে তর্কে না গিয়ে অনায়াসে বলা যায় বহু মানুষ নিজের পছন্দের দুটো চোখ দেখে এই লাইন আউড়ে ফেলেছেন বহুবার। যারা বলতে পারেননি তাদের মনেও গুনগুন করে জেগে উঠেছে এই সুর। সময়টা ২০০৩। জীবনের হাইওয়ে না চিনলেও অ্যালবামে ‘হাইওয়ে’ তখন চিনে গেছেন সকলেই।

প্রিয়তমা তখন সকলের মুখে। প্রেমিকাদের একটু গিটার হাতে ইম্প্রেস করতে হবে তো? এরপর পেরিয়েছে অনেক বসন্ত, সরস্বতী পুজো, ভ্যালেন্টাইনস ডে। যারা একসাথে যাবে বলেছিল বহুদূর তাদের মধ্যে অনেকেই নিজের রাস্তা খুঁজে নিয়েছে আলাদা দিকে। ধরে থাকা হাতগুলোও একটু আলগা।

ছাড়া ছাড়া ভাবে যারা রয়ে গেছে যারা একসাথে থাকবে বলে ঠিক করে ওই পুরনো প্রেমটাকে আঁকড়ে ধরে, তারা পড়ে গেছে মাঝখানে। ঠিক কিরকম অবস্থা এখন প্রেমের? এই অশান্ত সময়ে, একঘেয়ে জীবনে এখনো কি অল্প হলেও ধরা দিয়ে যায় প্রেম? না চলার রাস্তাগুলো থেকে উবে গেছে সবটাই? প্রিয়তমা শব্দটা কি এখনো তেমনই পাগল করে তোলে? রূপঙ্কর বললেন,’কেন এই নিরুত্তাপ, এই অবিরত আপোষের খেলা খেলে যাচ্ছি আমরা?

ফেলে আসা সেই রাত সত্যি ফেলে এসেছি আর কোনভাবে বেঁচে নেই রাতেরা…’. ‘প্রিয়তমা ৩’ এ এসে প্রেম তাই ধরে নেয় অপ্রেমের পথ। প্রেম কি তবে জীবনবিমুখ? না বোধহয়, আস্তে আস্তে এভাবেই অপ্রেম নিয়ে নিচ্ছে প্রেমের জায়গা। জীবন হয়ে উঠছে এইটাই। মানুষকে ঘিরে ধরছে একাকীত্ব। নিউক্লিয়ার ফ্যামিলিতে প্রেমও হয়ে পড়ছে নিউক্লিয়ার।

জীবনের গল্প যিনি গানে বুনে দেন তিনিও তাই জীবনের মতোই অপ্রেমের কথায় সাজিয়েছেন নিজের নতুন গানের ঘর। সুদীপের পিয়ানোয়, সায়নের বেস গিটারেও সেই হালকা বিষাদের ছোঁয়া। সব মিলিয়ে প্রিয়তমা ৩ জীবনের খুব কাছাকাছি।… Article সৌজন্যে Bengal Web Solution (9903360341)