বাড়িতে অশুভ শক্তির উপস্থিতি, বুঝে নিন এই সহজ উপায়ে…

0
32143

বর্তমান যুগে আমরা অনেক উন্নত হয়েছি। আমাদের ভাবনা চিন্তা বিজ্ঞানমনস্ক হয়েছে। কুসংস্কার ঝেড়ে ফেলে আমরা সব কিছু যুক্তি দিয়ে বুঝতে শিখেছি। কিন্তু এমন কিছু ঘটনা আছে যা বিজ্ঞানকে পিছনে ফেলে দেয়। যার কোনো সঠিক ব্যাখ্যা আমারা খুজে পাই না। আমরা সবাই চাই আমাদের বাড়িতে যেন কোনোরকম অশান্তি না আসে, কোনো কুনজর না লাগে। আর সেইসবের জন্য অনেকেই বাস্তুশাস্ত্র মেনে চলে।

বাস্তুমতে আমাদের কারনেই বাড়িতে নেগেটিভ এনার্জি প্রবেশ করে। বাড়িতে কুনজর লাগে। বাড়িতে অশুভ শক্তির কারনে সব কাজে বাধা আসে। ব্যাক্তিগত জীবনে উন্নতি বাধাপ্রাপ্ত হয়। বাস্তুমতে কিছু কিছু জিনিস আছে যা বাড়িতে রাখলে সুফল পাওয়া যায়।

বাস্তুমতে বাড়িতে লাফিং বুদ্ধ রাখলে বাড়ি থেকে নেগেটিভ এনার্জি দূর হয়। এছাড়া বাড়ির সদর দ্বারে পঞ্চমুখ হনুমানজীর মূর্তি রাখলে বাড়িতে কুপ্রভাব পরে না। বাস্তুমতে প্রত্যেক বুধবার গণপতিদেবের পুজো করলে বাড়িতে সর্বদা সুখ শান্তি বিরাজ করে। বাস্তুমতে প্রত্যেক বৃহস্পতিবার তুলসী তলায় প্রদীপ দেখালে বাড়ি থেকে নেগেটিভ এনার্জি দূর হয়।

মৃত্যুর পরবর্তী জীবন নিয়ে অনেকেই ভিন্ন মত পোষণ করে থাকেন। যারা অশুভ শক্তি বা আত্মা নিয়ে গবেষণা করছেন তাদের মতে মৃত্যুর পরে একটা জীবন আছে। তবে অনেকের কাছেই এই ধারনা ভ্রান্ত। আবার অনেকে আছেন যারা স্বজ্ঞানে এই অলৌকিক শক্তি উপলব্ধি করেছেন।

তাদের মতে এইসব শক্তির উপস্থিতি আমাদের মধ্যে বর্তমান রয়েছে। তবে আপনার বাড়িতে অশুভ শক্তির প্রভাব আছে কিনা তা বোঝার সহজ উপায় আছে। একটি পরিস্কার কাচের গ্লাসে এক তৃতীয়াংশ সি সল্ট নিন।

গ্লাসের বাকি অংশ ভর্তি করুন ভিনিগার দিয়ে। তবে সল্ট ও ভিনিগার যেন মিশে না যায় সেই ভাবে ঢালতে হবে। একই সঙ্গে যেন কাচের গ্লাসে হাতের ছাপ না পরে। এবার সূর্যের উপস্থিতিতে গ্লাসটিকে রেখে দিন যেখানে কোনো ধাক্কা বা ছোয়া লাগবে না।

২৪ ঘণ্টা পরে যদি দেখেন গ্লাসের ভিনিগার পরিষ্কার রয়েছে তাহলে আপনার বাড়িতে কোনো নেগেটিভ শক্তি নেই। আর যদি দেখেন ভিনিগারের রঙের পরিবর্তন হয়েছে তাহলে বুঝতে হবে আপনার বাড়িতে অশুভ শক্তি রয়েছে। তবে পুরো ব্যাপারটা বিশ্বাসের উপরে।