অমাবস্যায় পালন করুন এই ব্রত, বহু সমস্যা কাটিয়ে দেয় অবিশ্বাস্য ফল…

0
4091

বাঙালিদের বারো মাসে তেরো পার্বণ। প্রতিমাসে কিছু না কিছু লেগেই আছে। আর গৃহস্থ বাড়িতে পুজো পার্বণ ব্রত পালন করার একটা রীতি আছে। সংসারের ভালোর জন্য, পরিবারের সুখের জন্য অনেকেই অনেক ব্রত পালন করে থাকেন। নীলের উপোষ, শিবরাত্রি, বারের পুজো, শীতলা পুজো, কালী পুজো আরও অনেক ব্রত পালন করে থাকেন অনেকেই।

অনেকেই মনে করে থাকেন এইসব ব্রত পালন করলে পরিবারের সুখ শান্তি বজায় থাকবে। বিভিন্ন শারীরিক কারনে বা সংসারের শান্তির জন্য অনেকেই নিয়ম করে পূর্ণিমা ও অমাবস্যা পালন করে থাকেন।

অমাবস্যা পালন করলে অনেক সুফল মেলে। পরিবারের সুখ শান্তি বজায় রাখার জন্য, সমৃদ্ধি বৃদ্ধির জন্য অনেকেই অমাবস্যায় ধনলক্ষ্মীর আরাধনা করে থাকেন। জীবনের নানা সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে অমাবস্যা পালন করুন, ধনলক্ষ্মীর আরাধনা করুন। খুব সহজেই ফল মিলতে পারে।

শ্রাদ্ধ অনুষ্ঠানের জন্য অমাবস্যা খুবই উপযোগী। এই দিন শ্রাদ্ধ অনুষ্ঠান করলে পূর্বপুরুষদের আশীর্বাদ পাওয়া যায়। যদি কোনো কারনে পূর্বপুরুষদের শ্রাদ্ধ না করা সম্ভব হয় তাহলে অমাবস্যার দিন তা পালন করতে পারেন।

যদি কারুর রাশিফল অনুযায়ী পিতারুদোসের সমস্যা থাকে তাহলে অমাবস্যার দিন গরীব দুঃখীদের খাদ্য, বস্ত্র, পাদুকা এইসব দান করতে পারেন, তাহলে তার উপরে কু-প্রভাব কেটে যায়। অমাবস্যায় অনেকের বাড়িতে বিশেষ পুজোর আয়োজন করা হয়ে থাকে।

এই বিশেষ পুজো বিশেষ ফল অর্জনে সহায়তা করে। অনেকেই এই পুজোর তিথিতে মানসিক করে থাকেন যেকোনো শারীরিক কারনে। বিভিন্ন রোগমুক্তির জন্য অনেকেই এই ব্রত পালন করে থাকেন। স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সমস্যার সমাধানে অমাবস্যা অনেকেই পালন করেন।

অকাল মৃত্যু রোধ করতে এই তিথিতে পুজোর বিধান দেন পুরোহিতরা। অমাবস্যার পুজো পরিবারে সমৃদ্ধি বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে। ব্যবসার প্রসার ঘটাতে সাহায্য করে। এই তিথিতে এই বিশেষ পুজো করে সহজেই অনেক বাধা বিপত্তি কাটিয়ে উঠতে পারবেন।