আপনি কি একটুতেই নার্ভাস হয়ে যান ? এই কৌশলগুলি ব্যাবহারে পাবেন সুফল…

0
5448

আপনি যখন কোনো জায়গায় যান তখন কি একটুতেই নার্ভাস হয়ে পরেন। আপনার কি খুব তাড়াতাড়ি মনের মধ্যে ভয় জিনিসটা কাজ করে। তাহলে সাবধান, আপনার হার্ট খুব নরম। আপনার এই স্বভাবটা দূর করতে হবে। নাহলে এর ফল কিন্তু খুব বিপদজনক হতে পারে। হঠাত করেই আপনি হয়তো কোন কারণে কোন জায়গায় গেছেন।

সেখানে কোন বিপদের সম্মুখীন হয়ে পরেছেন। তখন আপনি সেটা সামলাতে না পেরে নার্ভাস হয়ে পরলে মারাত্ম বিপদ হতে পারে। আপনার এই নার্ভাসনেস থেকে প্রতিকারের কয়েকটি উপায় আছে। আসুন জেনে নেওয়া যাক সেগুলি কি কি –

১. আপনার এই নার্ভাসনেস কমানোর জন্য প্রথমেই আপনাকে যেটা করতে হবে সেটা হল আপনার শরীর চর্চা। প্রতিদিন নিয়ম করে ব্যায়াম করলে আপনার শরীর ভালো থাকবে। আপনার শরীর ও মস্তিস্কে রক্ত সঞ্চালন খুব ভালো হবে।

২. রোজ সময় করে দিনে অন্তত ২০ থেকে ৩০ মিনিট ধ্যান বা মেডিটেশন করতে হবে। যেটা আপনার শরীর ও মন দুই দিক থেকেই খুবই ভালো। এর ফলে আপনার অবসাদ দূর হবে। উৎকণ্ঠা ও অনিদ্রা খুব সহজেই কেটে যাবে।

৩. কোন জায়গায় গিয়ে যদি আপনি নার্ভাস বোধ করেন তাহলে নিজের ঠোটের ওপর আলতো করে আঙুল বোলাতে থাকুন। দেখবেন অনেকটা হালকা বোধ করবেন। এর ফলে আপনার মানসিক পেশি শক্ত হয়।

৪. আপনি যদি হটাঠ করে খুব নার্ভাস বোধ হয় তাহলে গভীর ভাবে খুব জোরে শ্বাস নিন। আর বড় বড় শ্বাস নিয়ে আস্তে আস্তে শ্বাস ছাড়ুন। যতক্ষণ শ্বাস নেবেন তার দ্বিগুণ সময় ধরে শ্বাস ছাড়বেন। এতে নার্ভাসনেস কমবে।

৫. সুযোগ পেলেই প্রাণ খুলে হাসতে থাকুন। হাসলে শরীর থেকে হরমোন বেশী মাত্রায় ক্ষরণ হয়। যার ফলে অবসাদ, উৎকণ্ঠা খুব সহজেই কেটে যাবে এবং নার্ভাস হওয়ার সম্ভাবনা অনেক কম হয়। ওপরের নিয়মগুলো ভালো করে মেনে চলুন, তাহলে নার্ভাস হওয়ার সম্ভাবনা অনেক কম হবে।