রেজিস্ট্রির কিছুদিন পর পুরানো প্রেমিকের সাথে পালিয়ে বিয়ে, ধর্ণায় বসলো স্বামী…

0
7179

এর আগে আমরা শুনেছি বিয়ে করার জন্য প্রেমিক প্রেমিকার বাড়ির সামনে ধর্না দিচ্ছে বা প্রেমিকা প্রেমিকের বাড়ির সামনে ধর্নায় বসেছে। কিন্তু এবারের ঘটনা একদম আলাদা। এবারে আর প্রেমিক বা প্রেমিকার জন্য নয়, এবারে রেজিস্ট্রি করা বউ এর জন্য ধর্নায় বসলো স্বামী। জানা গেছে পালিয়ে যাওয়ার বেশ কিছুদিন আগেই রেজিস্ট্রি হয়েছিল তাদের।

রেজিস্ট্রি হয় অন্য কারোর সঙ্গে আর পালিয়ে যায় পুরনো প্রেমিকের সঙ্গে। কথায় বলে প্রথম প্রেম নাকি ভোলা যায়না। আর সত্যিই তাই হয়েছে, ভুলতে পারেনি সেই মেয়েটিও। মেয়েটির বিয়ে ঠিক হয়েছিল উত্তর দিনাজপুরের গোয়ালপোখরের সাহাপুর এলাকার বাসিন্দা গোপাল বলের সাথে।

মেয়েটি ছিল মধুশিখর গ্রামের বাসিন্দা। তাদের রেজিস্ট্রি হয়েছিল কিছুদিন আগেই। যার সাথে রেজিস্ট্রি হয় তার অভিযোগ, মেয়েটি রেজিস্ট্রির পরে পালিয়ে যায় তার পুরনো প্রেমিক গোকুল সরকারের সঙ্গে। শুধু পালিয়ে গিয়ে সে থামেনি, বিয়েও করে তারা। আবার বিয়ে করে বিয়ের ছবি পোস্ট করে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

সেই ছবি দেখেই মাথা ঘুরে যায় গোপালের। তারপর সে হুমকি দেয় সে যদি নিজের স্ত্রীকে ফিরে না পায় তাহলে সে অনশনে বসবে। যেই বলা সেই কাজ। গোপাল নামের ছেলেটি শ্বশুরবাড়ির সামনে সটান ধর্নায় বসে। তার দাবি হল তার বউকে ফেরত চায়। খাওয়া ভুলে অনশন করে সে।

তার আরো দাবী যে এই ঘটনায় মেয়েটির সঙ্গে যুক্ত আছে তার পরিবারও। তাদের মেয়ের এমন আপত্তিকর কান্ডকে প্রশ্রয় দিয়েছেন তার বাড়ির লোক। তাই ছেলেটি শ্বশুরবাড়ির সামনেই ধর্নায় বসে। সে জানতে চায় যদি তারা তাদের মেয়েকে এই ব্যাপারে সাপোর্ট করে তাহলে তারা বিয়ের ঠিক অন্য কারোর সঙ্গে কেন করল।

তার প্রশ্নের উত্তর কেউ তাকে দিতে পারেনি। এমনকি তার শ্বশুরবাড়ির কেউ বাড়ির বাইরে বের হয়নি। এমন ঘটনা ঘটানোয় পাড়া প্রতিবেশি সকলেই মেয়েটিকে খারাপ বলছে। আর এটাই স্বাভাবিক। সকলের সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে মেয়েটিকে।

কেউ বলছে যে যদি তাকেই ভালোবাসতো তাহলে অন্য একজনের সঙ্গে রেজিস্ট্রি কেন করল? আবার কেউ বলছে রেজিস্ট্রি করার পর তাকেই স্বামী হিসাবে গ্রহন করে নেওয়া উচিত ছিল। বিভিন্ন লোকে বিভিন্ন কথা বলছে। কিন্তু মেয়েটি বা তার পরিবারের কোন প্রতিক্রিয়া নেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here