বাড়িতে শিবলিঙ্গ রয়েছে, তবে অবশ্যই পালন করুন এই নিয়মগুলি…

0
13212

হিন্দু পরিবারে পুজোআর্চা করার রীতি রয়েছে বহুযুগ ধরে। তাছাড়াও দেবদেবীর মূর্তি প্রতিমা স্থাপন করারও একটা প্রথা প্রচলন আছে। তাই প্রত্যেক হিন্দু বাড়িতে বিভিন্ন দেবদেবীর মূর্তি বা ছবি থাকে। সকাল সন্ধ্যা নিয়ম করে প্রায় সব গৃহস্থ বাড়িতে ঠাকুর পুজোর একটা চল আছে। বাড়িতে ঠাকুর থাকলে তার আরাধনা করার কিছু নিয়ম রীতি রয়েছে।

বাস্তুমতে প্রত্যেক দেবদেবীর পুজো করার আলাদা আলাদা নিয়ম আছে। সেইগুলি অবশ্যই পালন করা উচিত। আর্থিক উন্নতির জন্য, পরিবারের সুখ শান্তির জন্য বিভিন্ন দেবতার পুজো করা হয়। অনেকেই বাড়িতে শিবলিঙ্গ রাখেন। শাস্ত্রমতে শিবলিঙ্গকে সংবেদনশীল বলে মনে করা হয়।

শিবলিঙ্গ বাড়িতে রাখলে বেশ কিছু নিয়ম অবশ্যই মেনে চলা উচিত। বেদান্ত বৈদিক সনাতন ধর্মের ভিত্তি তথা বেদের শিরোভাগ, সম্পূর্ণ বেদান্তে শিব ছাড়া আর কারও সম্পর্কে এই ভাবে বলা হয়নি। শাস্ত্রমতে সৃষ্টির পূর্বে একমাত্র শিবই বর্তমান ছিল।

তিনি লীলাচ্ছলে ব্রহ্মরুপ ধারন করেন, বিষ্ণুরুপ ধারন করে পালন করেন আবার রুদ্ররুপ ধারন করে তার সংহার করেন। ব্রহ্মা বিষ্ণু হর তারই সৃষ্টি-স্থিতি-লয় এর রুপভেদ মাত্র। আসুন জেনে নেওয়া যাক বাড়িতে শিবলিঙ্গ থাকলে কি কি নিয়ম মেনে চলা উচিত।

ঘরে শিবলিঙ্গ থাকলে দেবদেবীর ভাঙ্গা বা খন্ডিত মূর্তি রাখা উচিত না। তবে শিবলিঙ্গ রাখা যেতে পারে কারন শিবলিঙ্গকে খন্ডিত বলেই ধরা হয় না। শিবলিঙ্গকে নিরাকার বলে মনে করা হয়। এই কারনে ভাঙ্গা শিবলিঙ্গ খুব শ্রদ্ধাশীল হয়।

শিবপুরাণ অনুযায়ী বাড়িতে অনেক দিন কোনো শিবলিঙ্গ রাখা ঠিক না। বাড়িতে খুব বড় শিবলিঙ্গ রাখা উচিত না। একটি ছোট শিবলিঙ্গ বাড়িতে রাখা খুবই শুভ। যেখানে শিবলিঙ্গ রাখবেন তার আশেপাশে সবসময় পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখার চেষ্টা করুন।

ঘরে শিবলিঙ্গ রাখলে তার পবিত্রতার যত্ন নিন। শিবলিঙ্গ পুজো করার সময় উত্তর দিকে মুখ করে পুজো করার চেষ্টা করুন। প্রতিদিন সকাল ও সন্ধ্যায় শিবলিঙ্গ পুজো করুন। যদি কোনো কারনে উপাসনা না করতে পারেন তাহলে অন্তত প্রদীপ জ্বেলে ১০৮ বার ‘ওম নমঃ শিবায়’ মন্ত্র জপ করুন।

পারলে রুদ্রাক্ষের মালা দিয়ে শিবের পুজো করুন। শিবলিঙ্গের পাশাপাশি গণেশ, মাতা পার্বতী, নন্দীর প্রতিমাও রাখুন। পুজোর শুরুতে গণেশ পুজো দিয়ে শুরু করুন। প্রতিদিন শিবলিঙ্গে জল উৎসর্গ করুন। কর্পূর জ্বালিয়ে আরতি করুন।