আপনার জন্ম মাস আপনার ব্যক্তিত্ব সম্পর্কে অনেক কিছু বলে, জেনে নিন এক্ষুনি…

0
2754
?????????????????????????????????????????????????????????

প্রতি মাসই আলাদা হয়ে থাকে, সময়ের সাথে তারা অনেক কিছু নিয়ে আসে, যেমন আগস্ট বর্ষা নিয়ে আসে এবং ডিসেম্বর ঠাণ্ডার সাথে শুভ নববর্ষের আনন্দ বহন করে। ঠিক তেমনই আপনার জন্ম মাস আপনার ব্যক্তিত্ব সম্পর্কে অনেক তথ্য প্রকাশ করে। আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক আপনি যে মাসে জন্মেছেন তা আপনার সম্পর্কে কি কি বলছে।

জানুয়ারি – জানুয়ারিতে জন্মগ্রহণকারীদের বেশিরভাগ শাসক ও নেতা বলে মনে করা হয়। এইসব মানুষেরা যেকোন কাজে স্বতন্ত্র হন। আর যদি জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে জন্মগ্রহণ করেন তাহলে তার মধ্যে কিছু অনন্য জিনিস রয়েছে।

ফেব্রুয়ারি – ফেব্রুয়ারি মাসে জন্মগ্রহণ করা মানুষেরা বন্ধুত্বপূর্ণ এবং সংবেদনশীল হন। এনারা সকলের অনুভূতি বুঝতে পারেন এবং সকলের সাথে ভালোভাবে মিলে মিশে যেতে পারেন।

মার্চ – মার্চ মাসে জন্মগ্রহণকারী মানুষেরা প্রচুর অর্থ উপার্জন করতে পারে। এনারা প্রথমে কাউকে বিশ্বাস করে না, ফলে তারা অনেক মূল্যবান সম্পর্ক হারিয়ে ফেলেন।

এপ্রিল – এপ্রিল মাসে জন্ম নেওয়া মানুষের স্বভাব বসের মতন হয়। এইসব মানুষের হাতও সৃজনশীল হয়।

মে – মে মাসে জন্মগ্রহণকারী মানুষেরা হয় শিল্পী। অভিনয়, গান এবং নাচ মে মাসে জন্ম নেওয়া মানুষেরা এর মধ্যে কিছু না কিছু অবশ্যই করে থাকেন।

জুন – জুন মাসে জন্ম নেওয়া মানুষদের রোমান্টিক বলা হয়। অনেকে বিশ্বাস করেন যে জুন মাসে জন্মগ্রহণকারী মানুষ হিংসুটে প্রকৃতির হয়।

জুলাই – জুলাই মাসে জন্ম নেওয়া মানুষেরা জ্ঞানী হন। তারা তাদের পরিবারের প্রতি বেশি সংযুক্ত থাকেন।

আগষ্ট – অগাস্ট মাসে জন্ম নেওয়া মানুষদের সম্প্রদায়ের স্তম্ভ বলে মনে করা হয়। আগস্টে জন্মগ্রহণকারী মানুষ ভালোবাসা দিতে পারে এবং তারা তাদের বিবাহিত জীবনে খুব গুরুত্ব দেয়।

সেপ্টেম্বর – সেপ্টেম্বরে জন্মগ্রহণকারীরা নমনীয় এবং বুদ্ধিমান হয়। তারা যেকোন পরিস্থিতিতে নিজেদেরকে ভালোভাবে মানিয়ে নিতে পারেন।

অক্টোবর – অক্টোবরে জন্মগ্রহণকারীদের খুব ভাগ্যবান বলে মনে করা হয়। যখন এনারা নিজেদের জন্য একটি লক্ষ্য নির্ধারণ করেন তখন সেটা তারা অবশ্যই সম্পূর্ণ করেন।

নভেম্বর – নভেম্বর মাসে জন্ম নেওয়া মানুষেরা সংবেদনশীল হন। এনারা যেকোনো ব্যক্তির সঙ্গে মিলে মিশে যাওয়ার শিল্প জানে।

ডিসেম্বর – ডিসেম্বরে জন্মগ্রহণকারীরা ভিতর থেকে দৃঢ় এবং নির্ভীক হয়। বিজ্ঞানীরা বলেন যে ডিসেম্বরে জন্মগ্রহণকারীদের হাঁপানির ঝুঁকি থাকে। ডিসেম্বর মাসটি ঠাণ্ডা হয় যার কারণে এই ধরনের রোগ হতে পারে।