পাড়ার সুন্দরী বৌদিকে নিয়ে পালালো জোমাটো ডেলিভারি বয়, তারপর যা হল…

0
2662

জোমাটো ও তার ডেলিভারি বয়দের সাথে জড়িত রয়েছে অনেক ঘটনা। এবারও আবার এক নতুন ঘটনার মুলে জোমাটো। ঘটনার সুত্রপাত এক ঈঞ্জিনিয়ার স্বামীকে নিয়ে। কর্মসুত্রে স্বামী বাইরে থাকে। স্ত্রীকে সময় দিতে পারে না, তার ফলে সে স্বামীর প্রতি বিরক্ত। এরই মধ্যে বাড়িতে খাওয়ার ডেলিভারি দিতে আসা এক জোমাটো বয়ের সাথে গোপন সম্পর্কে লিপ্ত হন ওই মহিলা।

ঘটনাটি ঘটে কিছুদিন আগে নয়া দিল্লীর চাঁদনী চক এলাকায়। প্রায় দিনই বাড়িতে বসে এক জোমটো রেস্টুরেন্ট থেকে খাবার অর্ডার দিতেন ওই ভদ্রমহিলা। কাকতালীয়ভাবে একই ডেলিভারি বয় তার বাড়িতে আসত খাবার নিয়ে। ভদ্রমহিলা প্রায়ই তাকে কিছু টাকা বকশিস দিত।

ছেলেটাও সুযোগ নিয়ে ভদ্রমহিলার সাথে অনেকক্ষণ গল্প করত। বিষয়টি জানাজানি হতে প্রতিবেশীরা ভদ্রমহিলার স্বামীকে বারাবার সতর্ক হতে বলেছিল। কিন্তু কথায় আছে “কপালের লিখন কেউ আটকাতে পারে না”।

তাই স্বামীও ব্যাপারটাকে গুরত্ব দেওয়ার প্রয়োজন মনে করেনি, বরং বলেছে আজকের দিনে এসব কোনো ব্যাপার না, খুবই স্বাভাবিক ঘটনা। কিন্তু এই স্বাভাবিক ঘটনাটাই অস্বাভাবিক হয়ে উঠল। ছেলেটি অন্যান্য দিনের মতোই খাবার দিতে এসেছিল একদিন। ঠিক তখনই ঘটে যায় দুর্ঘটনা।

সে মহিলাকে পালিয়ে নিয়ে যাবার জন্য প্রস্তুত হয়ে আসে। আর ওই ভদ্রমহিলাও বাড়ি থেকে নগদ ১ লক্ষ টাকা ও যাবতীয় গয়না নিয়ে ওই ডেলিভারি বয়ের সাথে পালিয়ে যায়। স্বামী ব্যাপারটা জানতে পারলে হা-হুতাশ করতে থাকে আর ভাবে প্রতিবেশীর কথা শুনলে হয়ত এই দিনটা তাকে দেখতে হত না।

প্রতিবেশীদের উপদেশ গুরুত্বহীন মনে করে বর্তমানে হাত কামড়াচ্ছেন ইঞ্জিনিয়ার স্বামী। স্বামী পুলিসে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। যেহেতু এটা প্রেম ঘটিত ব্যাপার তাই পুলিশ এটা নিয়ে তদন্তের আশ্বাস দিয়েছে।

আপাতত মহিলা ও সেই ডেলিভারি বয়ের কোন খবর পাওয়া জায়নি। সম্ভবত তারা কোথাও লুকিয়ে সংসার পেতেছে। মহিলা ফিরে এলে বা তাকে খুঁজে পেলে যে কি হবে তারই অপেক্ষায় রয়েছে তার প্রতিবেশীরা। এবার দেখা যাক কি হয়।